মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

আমাদের অর্জনসমূহ


    জননিরাপত্তা রাষ্ট্রের প্রথম প্রতিশ্রæতি। জননিরাপত্তা রক্ষায় বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্ররিরক্ষা বাহিনীর রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। বর্তমানে ০২টি মহিলা ব্যাটালিয়নসহ সর্বমোট ৩৯টি ব্যাটালিয়নের ১৫,৫৮৯ জন সদস্য- সদস্যা সারা দেশে শান্তি- শৃঙ্খলা ও জননিরাপত্তা রক্ষায় কাজ করছে। এছাড়া সারা দেশের সরকারি- বেসরকারি ৩,৭৭১টি  সংস্থায় মোট ৪৮,২৬৮জন সাধারণ আনসার সদস্য- সদস্যা নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছে। ভিডিপি সদস্য- সদস্যারা জাতীয় নির্বাচনসহ বিভিন্ন নির্বাচন, ঈদ, পূজা, রেলপথও মহাসড়কের নিরাপত্তা রক্ষায় অঙ্গীভূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করে।
নির্বাচন


    গত বছর ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা, জেলা পরিষদ, সিটি কর্পোরেশন, জাতীয় সংসদ সাধারণ/ পুনঃনির্বাচন আনসার ও ভিডিপি সদস্য- সদস্যা ভিভিন্ন নির্বাচন কেন্দ্রে শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করে।

আনসার গার্ড ব্যাটালিয়ন প্রতিষ্ঠা
সম্প্রতি এ বাহিনীতে ব্যাটালিয়ন আনসার সদস্যদের সমন্বয়ে একটি বিশেষ স্ট্রাইকিং ফোর্স গঠন করা হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ কূটনৈতিক জোন ও কূটনীতিকগণের নিরাপত্তা রক্ষার জন্য গত ১৮ আগস্ট ২০১৬ খ্রিঃ এ ফোর্স গঠন করা হয়। কৃটনৈতিক ব্যক্তিবর্গের নিরাপত্তা প্রদান ছাড়া ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ টহল ও চেকপোস্টে ৩০০ জন সদস্যের এ ফোর্স দয়িত্ব পালন করছে। এ ফোর্সের ৩০ জন আইসিডিডিআরবি এবং ২৪ জন ইউরোপীয় ইউনিয়ন দূতাবাসে সার্বক্ষণিকভাবে নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্বে মোতায়েন রয়েছে। সম্প্রতি নারায়ণগ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে তারা নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্ব পালন করে সর্বমহলের প্রশংসা অর্জন করেছে।

এভিয়েশন সিকিউরিটি (AVSEC)

    গত বছর মাননীয় প্রাধানমন্ত্রীর নির্দেশে হয়রত শাহ্জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর- এর সার্বিক নিরাপত্তা, জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ বিমান, পুলিশ এবং বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সমন্বয়ে একটি বিশেষ ফোর্স এভসেক (AVSEC) গঠন করা হয়। বর্তমানে এভসেকে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীল ০৩জন প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তা, ০৫ জন ২য় শ্রেণিত কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন পদবির ৪২ জন ব্যাটালিয়ন আনসার সদস্যসহ মোট ৫০জন বিমানবন্দরের নিরাপত্তা রক্ষায় সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করছে।

নারী উন্নয়নে
    প্রায় ৬০ লক্ষাধিক সদস্য- সদস্যার এ বাহিনীর অর্ধেক সদস্যই নারী। নারী উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর রয়েছে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা। এ বাহিনী হতে সদস্যারা বিভিন্ন কারিগরি ও আয়- বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে স্বাবলম্বী হচ্ছে। এ প্রশিক্ষণগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো-  সেলাই ও ফ্যাশন ডিজাইন, কুটির শিল্প, মোবাইল ফোন মেরামত, মোটর ড্রাইভিং এবং প্রাথমিক চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য পরিচর্যা। প্রশিক্ষণ গ্রহণ শেষে আনসার- ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংকে হতে বিভিন্ন খাতে স্বল্প সুদে ঋণ গ্রহণ গ্রহন করে নিজেদের ও আর্থ- সামাজিক উন্নয়নে দৃষ্টান্ত স্থাপন করছে।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter